মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে আমাদী ইউনিয়ন

আমাদী ইউনিয়নের ইতিহাস
আমাদী ইউনিয়নের নামকরণের সঠিক তথ্য বা ইতিহাস পাওয়া দুষ্কর। তবে বিভিন্ন মতামত ও তথ্যের ভিত্তিতে যতটুকু পাওয়া গেছে তারই আলোকে নিম্নে আলোচনা করা হলো। একসময় এ ইউনিয়নের পুরাটাই ছিল সুন্দরবন। তার পর কিছু লোক এখানে এসে বনকেটে আবাদ শুরু করে এবং জনবসতি গড়ে ওঠে। এ ইউনিয়নের বর্তমান আমাদী বাজার নামক স্থানটি সর্ব প্রথমে জনবসতি বা লোকালয় হিসেবে গড়ে ওঠে। তারপর এখানে হাট বসে। এই হাটে বিভিন্ন জায়গা থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের আমদানী হতো সে সময় (যা এখানো ও হয়) আমাদী বাজারটি নদীর ধারে হওয়ায় তখনকার দিনে নদী পথে প্রচুর জিনিসপত্র এখানে আমদানী হতো। এই ‘আমদানী’ থেকে ‘আমাদী’ হয় বলে অনেকের ধারণা। ভিন্ন একমতে জানা যায়, এ ইউনিয়নে ( জায়গীর মহল,আমাদী গ্রামে) উর্বর পলিযুক্ত ভূমিতে প্রচুর আমগাছ জন্মে। যে আমগাছগুলো এখন ও বিদ্যমান।এই আম বৃক্ষের আম ফলের সাথে আদি শব্দ যুক্ত হয়ে “আমাদী” নামের উৎপত্তি। কারো কারো মতে, হযরত খানজাহান আলী (রহঃ) এর ভক্ত শিষ্য বোরহান খাঁ (বুড়ো খা) ও ফতে খাঁ আবাদ পত্তন করার পর এখানে এক নতুন জনগোষ্ঠীর আমদানী বা আবাদ শুরু হয়।এ নতুন জনগোষ্ঠীর এখানে আসা বা আমদানি পরিচায়ক হিসেবে এ স্থানের নামকরণ করেন “আমাদী”। অন্য একমতে পাওয়া যায়, আমাদী ইউনিয়নের দক্ষিণ পাশ বরাবর বয়ে গেছে কয়রা নদী। এ নদীতে প্রচুর পরিমাণে ছোট ছোট এক প্রকার মাছ পাওয়া যেত,যা এখনো পাওয়া যায়। স্হানীয় ভাবে এ মাছের নাম ‘আমাদী’ মাছ। এ আমাদী মাছের নাম থেকে আমাদী ইউনিয়নের নামকরণ করা হয়। অন্য এক সূত্রে জানা যায়, অতি পূর্ব কালে এ স্থানকে আমদ্বীপ(আম্রদ্বীপ) বলা হতো। সেই আমদ্বীপ বা আম্রদীপ থেকে ‘আমাদী’ নাম করণ হয়েছে
উত্তরেঃ চাদখালী ইউনিয়ন
দক্ষিনেঃ কয়রা নদী।
পুর্বেঃ মহেশ্বরীপুর ইউনিয়ন।
পশ্চিমেঃ কপোতাক্ষ নদ।
নাম- আমাদী ইউনিয়ন পরিষদ
অবস্থান- জায়গীরমহল কৃষি ব্যাংকের দ্বিতীয় তলা
আয়তন- ৪১.৪৭ বর্গকিলোমিটার
লোকসংখ্যা- ৪০২০০
পুরুষ- ১৯৮৬৪
মহিলা- ২০৩৩৬
মোট ভোটার- ২৩৩৩১
পুরুষ- ১১৭১৮
মহিলা- ১১৬১৩
মোট পরিবার- ৮৪৪৫
হাট- ০৪টি
ঈদগাহ- ২২টি
শিক্ষার হার- ৭৭%
গ্রাম সংখ্যা- ২৭ টি
মৌজা- ১৭ টি
কলেজ- ৩টি
হাইস্কুল- ১৪টি
পুলিশ ক্যাম্প- ১টি
বেসরকারী রেডিও সেন্টার- ১টি

 

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter